এটি ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য অনুপ্রেরণা: মাশরাফি

সেমিফাইনালের মতো বড় ম্যাচ জিততে বাংলাদেশ দলের সবাইকে মানসিকভাবে আরো দৃঢ় হতে হবে। এমনটাই মনে করেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শেষ চারে খেলাটাকে ভবিষ্যতের জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে নিতে চান তিনি।

সেমিফাইনালে ভারতের সামনে তিনশোর ওপরে টার্গেট দেয়া খুব কঠিন ছিলো না বাংলাদেশের জন্য। কিন্তু মিডল অর্ডারে হঠাত ধ্বস আর লোয়ার অর্ডারে মাশরাফি ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতে না পারায় মাত্র ২৬৪ রানের পুঁজি।

আবার ভারতের বিশ্বসেরা ব্যাটিং লাইনআপকে আটকাতে বল হাতেও খুঁজে পাওয়া যায়নি বাংলাদেশের বোলারদের। ৯ উইকেটে হারের দিনে আবারও কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ।

ফাইনালে খেলার স্বপ্ন পুরন না হলেও, প্রথমবারের মতো আইসিসির কোন বড় ইভেন্টের সেমিতে খেলার তৃপ্তি আছে সবার মাঝে। তবে আগামীর জন্য এবারের সাফল্য তরুণদের সামনে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে বলে মনে করছেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি বলেন, ২০১৯ বিশ্বকাপ হবে ইংল্যান্ডে। তার আগে এই আসর সবার জন্য বড় একটি অভিজ্ঞতা।

মাশরাফির সঙ্গে সুর মিলিয়ে সাবেক শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার কুমার সাঙ্গাকারাও বলেছেন, বাংলাদেশ অবশ্যই তাদের অর্জন নিয়ে গর্বিত হতে পারে। তবে ইংল্যান্ডের পরের বিশ্বকাপের জন্য তাদের বোলিংয়ে আরও বৈচিত্র্য বাড়াতে হবে।  কয়েকজন খেলোয়াড় আছে, যাদের ওপর ভিত্তি করে তারা সাফল্য পেতে পারে। বলা যায়, দেশে ও দেশের বাইরে তাদের আরও রোমাঞ্চকর সময় আসছে।

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন